17 C
Kolkata
Friday, January 15, 2021

IndiGo executive’s murder lands Nitish Kumar in fresh political trouble | Sangbad Pratidin

Must read

Published by: Biswadip Dey |    Posted: January 13, 2021 8:25 pm|    Updated: January 13, 2021 8:25 pm


ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ক্রমশই চাপ বাড়ছে বিহারের (Bihar) মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমারের (Nitish Kumar) উপর। তাঁর বাড়ি থেকে মাত্র ২ কিমি দূরে ‘ইন্ডিগো’ (Indigo) কর্তার হত্যাকাণ্ডকে ঘিরে রাতারাতি কোণঠাসা হয়ে পড়েছেন প্রবীণ জেডিইউ (JDU) নেতা। বিরোধীরা তাঁর পদত্যাগ দাবি করছে। এখানেই শেষ নয়। জোটসঙ্গী বিজেপিও (BJP) এবার কটাক্ষ করতে শুরু করেছে তাঁকে। যা ফের এনডিএ-র ফাটলকে স্পষ্ট করে তুলছে।

মঙ্গলবার বিমান সংস্থা ‘ইন্ডিগো’-র ম্যানেজার রূপেশ সিংকে গুলি করে মারে দুষ্কৃতীরা। সেই সময় তিনি তাঁর বাড়ির একেবারে দোরগোড়ায় ছিলেন। প্রকাশ্যে ওই রকম অভিজাত এক এলাকায় এমন ভয়ংকর হত্যাকাণ্ড নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে বিরোধীরা। নীতীশ কুমারকে ‘জঙ্গলরাজের মহারাজা’ বলে কটাক্ষ করেছেন আরজেডি নেতা তেজস্বী যাদব (Tejaswi Jadav)। তাঁর কথায়, ‘‘শুনেছি ১৫ রাউন্ড গুলি চা‌লানো হয়েছিল। তার মধ্যে ছ’টা গুলি এসে ঝাঁঝরা করে দেয় ওঁকে। মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ি থেকে ২ কিমি দূরে এমন ঘটনা ঘটেছে। সমস্ত প্রশ্নের উত্তর ওঁকে দিতেই হবে। বিহার এই মুহূর্তে ভুল শাসকের হাতে। গুন্ডারা সরকার চালাচ্ছে।’’ তাঁর অভিযোগ, নীতীশ কুমার এতটাই ‘ক্লান্ত’ যে উনি আর রাজ্যের শাসনভার নিতে পারছেন না।

[আরও পড়ুন: বিডেনের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে ফের ট্রাম্প সমর্থকদের হামলার আশঙ্কা! সতর্ক করল FBI]

বিরোধীদের সঙ্গে সঙ্গে এবার সুর চড়িয়েছেন বিজেপি নেতারাও। রাজ্যসভার সদস্য গোপালনারায়ণ সিংয়ের স্পষ্ট দাবি, রাজ্যের আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির উপরে নীতীশের কোনও নিয়ন্ত্রণ নেই। তাঁর কথায়, ‘‘বিহার সরকার চলছে আমাদের সমর্থনে। কিন্তু পরিস্থিতি যা, তাতে বিহারের উন্নতির জন্য এটুকু বলতেই হবে। রাজ্যের আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি খুবই খারাপ অবস্থায় রয়েছে। বর্তমানে পুলিশের উপরেও সরকারের কোনও নিয়ন্ত্রণই নেই।’’ সরাসরি নীতীশের সমালোচনাও করেন তিনি। তাঁর মতে, ‘‘আমরা ভেবেছিলাম উনি রাজনীতির ঊর্ধ্বে উঠে রাজ্যের আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে কড়া হবেন। কিন্তু যা পরিস্থিতি, ভবিষ্যৎ খুব একটা উজ্জ্বল নয়।’’

বিজেপি সাংসদ বিবেক ঠাকুর এতটা কড়া ভাষায় না বললেও রাজ্যের পুলিশের উপর কার্যত সন্দেহ প্রকাশ করে বলেছেন, ‘‘যদি পুলিশ কয়েক দিনের মধ্যে সমাধানসূত্র না পায়, তাহলে সিবিআইকেই তদন্তভার দেওয়া হোক।’’ নীতীশের সঙ্গে বিজেপির দূরত্ব ক্রমশ বাড়ছে বলে জোর জল্পনা রয়েছে ওয়াকিবহাল মহলে। তা আরও একবার স্পষ্ট হল বিজেপি নেতাদের এই ধরনের কথায়।

[আরও পড়ুন : জোরাল হচ্ছে পদত্যাগের দাবি! পাক প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে ‘জেহাদ’-এর ডাক বিরোধীদের]



Source

- Advertisement -

More articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisement -

Latest article