29 C
Kolkata
Sunday, May 16, 2021

India Coronavirus: ভারতের এই পরিস্থিতিতে দ্রুত কয়েক সপ্তাহ লকডাউন প্রয়োজন, মত বাইডেন প্রশাসনের বিশিষ্ট চিকিৎসক অ্যান্টনি এস ফৌসির

Must read

#ওয়াশিংটন: ভারতে করোনার দ্বিতীয় টেউ যেভাবে আছড়ে পড়েছে তাতে ভয় বাড়ছে। প্রতিদিন আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা রেকর্ড গড়ছে। এমন পরিস্থিতিতে দেশের বেশিরভাগ রাজ্য লকডাউন ও আংশিক লকডাউনের পথে হেঁটেছে। জরুরি পরিষেবা গুলি ছাড়া সমস্ত কিছুই বন্ধ। কার্যত গৃহবন্দি গোটা দেশ। কোনও দেশই চায়না লকডাউন করতে। কিন্তু পরিস্থিতি বাধ্য করছে। আন্তর্জাতিক স্তরের কোভিড বিশেষজ্ঞ ডাঃ অ্যান্টনি এস ফৌসি (Dr Anthony S Fauci) The Indian Express-কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বলেছেন ভারতের মত দেশে “কয়েক সপ্তাহ”-এর জন্য “তাৎক্ষণিক” লকডাউন করার প্রয়োজন রয়েছে। এই কঠিন সময়ে এটা খুব জরুরী। ডাঃ ফৌসি বিডেন প্রশাসনের প্রধান চিকিৎসক পরামর্শদাতা ও সাত জন মার্কিন রাষ্ট্রপতির সঙ্গে কাজ করেছেন। শুক্রবার মেরিল্যান্ডের বেথেসডা জাতীয় স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউট (National Institute of Health in Bethesda) থেকে The Indian Express-এর সঙ্গে কথা বলেন।

তিনি বলেন ভারত এখন এক কঠিন মুহূর্তের মধ্যে দিয়ে চলছে। আমি রাজনীতির উর্ধে কথা বিচার করে বলছি। কারণ আমি জনস্বাস্থ্য পরিষেবার একজন কর্মী, আমি কোনও রাজনৈতিক ব্যক্তি নই। আমি বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম সূত্রে কিছু ভিডিও দেখলাম তাতে মনে হল ভারতে এখন গভীর সংকট। রাস্তায় ঘরের মেয়েরা বেরিয়ে গিয়েছে, তাঁদের পিতা ও পরিবারের জন্য অক্সিজেনের সন্ধান করতে। এই সব ছবি আমাকে ভাবিয়ে তুলছে।

তিনি আরও বলেন, এই মুহূর্তে যত দ্রুত সম্ভব টিকাকরণের প্রক্রিয়া ভারতের জন্য শ্রেয়। এটা এখন সবচাইতে বেশি প্রয়োজনীয়। এছাড়াও হাসপাতালের চিকিৎসা, অক্সিজেনের ঘাটতি কীভাবে মিটবে সেই দিকে নজর দিতে হবে প্রশাসনকেই। অক্সিজেনের সমস্যা যাতে সামনের দিনগুলোতে পোহাতে না হয় তার জন্য এখন থেকেই ভাবতে হবে। পাশাপাশি তিনি ভারতের পাশে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে থাকার কথা উল্লেখ করে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন ‘আমি দেখে খুব সন্তুষ্ট, এখন ওষুধ, অক্সিজেন, পিপিই এবং ভেন্টিলেটরের জন্য ভারতের কাছে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হয়ে উঠেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। এই মুহুর্তে বিশ্বের অন্য দেশগুলিকেও ভারতের পাশে চান ডাঃ ফৌসি। কারণ তিনি মনে করেন গভীর সংকটের সময় ভারত অন্যান্য দেশগুলির জন্য উদারতা দেখিয়েছে। এখন সময় এসেছে অন্যান্য দেশগুলির ভারতের পাশে থাকার।

দ্বারা প্রকাশিত:রাইমা চক্রবর্তী

প্রথম প্রকাশিত:



Source

- Advertisement -spot_img

More articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Latest article