CP of Kolkata Anuj Sharma writes open letter to the colleagues reminding them to take care of themselves in Durga Puja| Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তাঁর কর্তব্যপরায়ণতার নিয়ে প্রশংসার শেষ নেই। করোনা সংক্রমণকালীনও বাড়ি থেকেই প্রশাসনিক কাজকর্ম চালিয়েছিলেন, সে অর্থে কোনও ছুটি নেননি। একইসঙ্গে তিনি সহকর্মীদের প্রতিও অত্যন্ত যত্নশীল। একটা টিম নিয়ে কাজ করার ক্ষেত্রে যা অতি প্রয়োজনীয়। বলা হচ্ছে, কলকাতার পুলিশ কমিশনার অনুজ শর্মার (Anuj Sharma) কথা। নিজে করোনা আক্রান্ত থাকাকালীন সহকর্মীদের খোলা চিঠি লিখে আতঙ্কিত না হয়ে সাবধানে থাকা, সতর্কতার সঙ্গে কর্তব্য পালনের কথা বলেছিলেন। আবারও তিনি চিঠি লিখলেন। এবারের বিষয়, করোনা আবহে দুর্গাপুজোর (Durga Puja) উৎসবে মাতোয়ারা শহরকে সামলে রাখতে হবে। তা করতে গিয়ে পুলিশকর্মীরা যেন নিজেদের প্রতি অযত্ন না করেন, সেই বার্তা রয়েছে তাঁর লেখায়।

করোনা (Coronavirus) সংক্রমণের প্রায় গোড়া থেকেই রাজ্যবাসীকে সংক্রমণ থেকে নিরাপদে রাখতে চিকিৎসকদের মতোই প্রথম সারির যোদ্ধা হয়ে লড়েছে পুলিশ। কলকাতাও তার ব্যতিক্রম নয়। বরং এখানে সংক্রমণ অতি দ্রুত বাড়তে থাকায় কলকাতা পুলিশকে বাড়তি দায়িত্ব নিয়ে কাজ করতে হয়েছে এবং হচ্ছেও। এভাবে কাজের কারণেই বহু পুলিশ কর্মী করোনা সংক্রমিত হয়েছেন, প্রাণহানিও ঘটেছে কয়েকজনের। মাস খানেক আগে কলকাতার পুলিশ কমিশনার অনুজ শর্মা নিজেও করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। তবে উপসর্গহীন হওয়ায় তিনি হোম আইসোলেশনে থাকাকালীন কাজ করেছিলেন। সেবারও তাঁর নিজের অভিজ্ঞতা ভাগ করে নিতে সহকর্মীদের উদ্দেশে লিখেছিলেন চিঠি।

[আরও পডুন: বলবিন্দরের স্ত্রীকে সুবিচারের আশ্বাস, পোশাক উপহার, মুখ্যমন্ত্রীকে ধন্যবাদ মনজিন্দরের]

আবারও চিঠি লিখলেন কলকাতার নগরপাল। তাতে খুব গুরুত্বপূর্ণ বার্তা। অন্যবারের মতো এবছরও শারদোৎসবের মুখর শহরকে নিরাপদে রাখার গুরুদায়িত্ব পুলিশের উপর। কিন্তু এবছর সংকটের মধ্যে দিয়ে উৎসবের উদযাপন। তাই দিনরাত কর্তব্য পালন করতে গিয়ে কোনও পুলিশ কর্মী যেন নিজেদের প্রতি অবহেলা না করেন, চিঠির প্রতি ছত্রে বারবার একথাই মনে দিয়েছেন CP অনুজ শর্মা। N-95 মাস্ক, স্যানিটাইজার, গ্লাভস, ফেস শিল্ড ছাড়া কেউ যেন বাইরের কাজ না করেন, সাবধানবাণী নগরপালের।

[আরও পডুন: এবার করোনায় আক্রান্ত দিলীপ ঘোষ, ভরতি সল্টলেকের বেসরকারি হাসপাতালে]

চিঠিতে তিনি এও উল্লেখ করতে ভোলেননি যে গত ৭ মাস ধরে পুলিশ যেভাবে করোনার বিরুদ্ধে সামনের সারিতে থেকে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে, তার জন্য তিনি কমিশনার হিসেবে গর্ববোধ করেন। পাশাপাশি সহকর্মীদের পরিবারের প্রতি শারদীয়ার শুভেচ্ছাও জানিয়েছেন। আর এখানেই বোধহয় অন্য সকলের থেকে পৃথক আইপিএস অনুজ শর্মা। যিনি একাধারে নিজের কর্তব্যে অটল, অন্যদিকে যোগ্য নেতার মতো সহকর্মীদের খেয়াল রাখেন।

Leave a Comment

%d bloggers like this: