Bengal’s girl makes a tool to helps who wear mask long time ।Sangbad Pratidin

Published by: Sayani Sen |    Posted: October 17, 2020 2:44 pm|    Updated: October 17, 2020 2:45 pm

সৌরভ মাজি, বর্ধমান: করোনা কালে বাইরে বেরলে সকলের মুখেই মাস্ক (Mask) থাকার কথা। কেউ কেউ হয়তো পরছেন না। কিন্তু যাঁরা নিয়মিত মাস্ক ব্যবহার করছেন তাঁদের অনেকেই একটা সমস্যা ভুগছেন। দীর্ঘক্ষণ মাস্ক পরে থাকার ফলে কানে ব্যথা হচ্ছে। মাস্ক কানের সঙ্গে বাঁধা থাকায় ব্যথা হচ্ছে। যা মাস্ক খোলার পরেও দীর্ঘ সময় থেকে যাচ্ছে। এই ব্যথা থেকে মুক্তি দিতে বিশেষ টুল বা যন্ত্রাংশ তৈরি করে জাতীয় পুরস্কার পেল পূর্ব বর্ধমানের মেমারির স্কুলছাত্রী দিগন্তিকা বসু। ডা এপিজে আবদুল কালাম ইউনাইটেড মাইন্ড চিলড্রেন ক্রিয়েটিভিটি অ্যান্ড ইনোভেশন অ্যাওয়ার্ড পেয়েছে মেমারি ভিএম ইনস্টিটিউশন ইউনিট-২ এর দ্বাদশ শ্রেণীর ওই ছাত্রী। শুক্রবার ওয়েবসাইটে এই পুরস্কার ঘোষণা করা হয়েছে। এবারের এই পুরস্কারের জন্য মোট ২২টি রাজ্য থেকে মনোনয়ন জমা দিয়েছিলেন খুদে বিজ্ঞানীরা। তার মধ্যে ৯ জন এবারের পুরস্কার পেয়েছে।

Digantika Basu

কেন্দ্রের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রকের অধীন কাউন্সিল অফ সায়েন্টেফিক অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিয়াল রিসার্চ, সৃষ্টি ও জ্ঞানের মতো আন্তর্জাতিক গবেষণা প্রতিষ্ঠান এই পুরস্কার দিয়ে থাকে বলে জানা গিয়েছে। সারা দেশের খুদে বিজ্ঞানীদের নয়া উদ্ভাবনী পর্যালোচনা করেছেন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রকের ন্যাশনাল ইনোভেশন ফাউন্ডেশনের অধিকর্তা বিপিন কুমার, অধ্যাপক অনিলকুমার গুপ্তা-সহ দেশের বিভিন্ন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের দিকপাল অধ্যাপক ও বিজ্ঞানীরা।

[আরও পড়ুন: ফেলে দেওয়া জিনিস থেকে ঘর সাজানো রকমারি সামগ্রী, কলকাতায় খুলল ‘জিরো ওয়েস্ট স্টোর’]

কী রয়েছে দিগন্তিকার উদ্ভাবনীতে? মেমারির কন্যাশ্রী জানিয়েছে, অতিমারির সময়ে সকলকেই মাস্ক ব্যবহার করতে হচ্ছে। বিশেষ করে স্বাস্থ্যকর্মী, পুলিশকর্মীদের দীর্ঘ সময় ধরে মাস্ক পরে কর্তব্য পালন করতে হচ্ছে। দীর্ঘক্ষণ মাস্ক ব্যবহারের ফলে দেখা যাচ্ছে তাঁদের কানের পিছনের দিকে ব্যথা হচ্ছে। তা থেকে মুক্তি দিচ্ছে দিগন্তিকার উদ্ভাবনী। ফেলে দেওয়া প্লাস্টিক বা নমনীয় বোর্ডের মাধ্যমে একটি বিশেষ নকশা তৈরি করেছে এই খুদে বিজ্ঞানী। মাস্ক ব্যবহারের সময় এই টুলটি মাথার পিছনের দিকে আটকে থাকবে। ফলে কানের উপর চাপ পড়বে না মাস্কের জন্য। তাই দীর্ঘ সময় মাস্ক পরে থাকলেও কানে ব্যথা হবে না। এই উদ্ভাবনীর জন্যই জাতীয় স্বীকৃতি পেয়েছে দিগন্তিকা। এর আগেও জাতীয় স্তরে একাধিক পুরস্কার পেয়েছে মেমারির এই কন্যা।

Digantika Basu

[আরও পড়ুন: গাছের প্রতি বাঘের অকৃত্রিম ভালবাসা! এই ছবি তুলেই সেরার খেতাব পেলেন ফটোগ্রাফার]

Leave a Comment

%d bloggers like this: