Bengali news of Deepika Padukone’s photo used on fake MNREGA job cards in Madhya Pradesh| Sangbad Pratidin

Published by: Suparna Majumder |    Posted: October 16, 2020 4:52 pm|    Updated: October 16, 2020 5:38 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মহাত্মা গান্ধী জাতীয় গ্রামীণ কর্মসংস্থান গ্যারান্টি অ্যাক্টের (MGNREGA) জব কার্ড। কার্ডে নাম সোনু শান্তিলালের। মধ্যপ্রদেশের জিরানিয়া গ্রামের বাসিন্দা। কার্ডের ছবিতে চোখ পড়তেই চমকে উঠতে হয়। এ যে বলিউডের ‘মস্তানি’ দীপিকা পাড়ুকোন (Deepika Padukone)। এমনই কার্ড আরও অনেক রয়েছে। আর তাতে এভাবেই বলিউড তারকাদের ছবি লাগানো হয়েছে। এভাবেই সরকারি প্রকল্পে কর্মসংস্থান দেখিয়ে হাতিয়ে নেওয়া হয়েছে লক্ষাধিক টাকা। সম্প্রতি এই দুর্নীতির খবর প্রকাশ্যে আসতেই চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে মধ্যপ্রদেশে।

সামাজিক সুরক্ষা প্রকল্প জাতীয় গ্রামীণ কর্মসংস্থান গ্যারান্টি অ্যাক্ট ২০০৫। যার মাধ্যমে দেশের গ্রামীণ শ্রমিকদের কর্মসংস্থান ও জীবিকা প্রদানের প্রচেষ্টা করা হয়। শ্রম আইন হিসেবে পাস করা হওয়ার পর ২০০৬ সালে ২০০ টি জেলার মধ্যে বাস্তবায়িত করার পরিকল্পনা করা হয়। ২০০৮ সাল নাগাদ সমগ্র দেশে চালু করা হয়। নাম নথিভুক্ত করার ১৫ দিনের মধ্যে কোনও কাজ দেওয়া না হলে আবেদনকারী বেকার ভাতা পাওয়ার যোগ্য হন। আর এই সুযোগকে হাতিয়ার করেই জালিয়াতির জাল বোনা হয়েছে জিরানিয়া গ্রামে।

[আরও পড়ুন: পুজোর মুখে করোনা আক্রান্ত গায়ক কুমার শানু, মনখারাপ অনুরাগীদের]

‘জব কার্ড’ প্রতরণার শিকার মনু দুবে এক স্থানীয় বাসিন্দা জানান, তাঁর কার্ডেও দীপিকা পাড়ুকোনের ছবি লাগানো হয়েছে। সেই কার্ড ব্যবহার করে প্রায় ৩০ হাজার টাকা তাঁর অ্যাকাউন্ট থেকে তুলে নেওয়া হয়েছে। মনুর মতো জিরানিয়া গ্রামের অনন্ত ১০ জন এই প্রতরণার শিকার হয়েছেন। প্রত্যেকেই অভিযোগ জানিয়েছেন, গ্রামের প্রধান, তাঁর সেক্রেটারি, এমপ্লয়মেন্ট অ্যাসিস্ট্যান্টের বিরুদ্ধে। অভিযোগ, এই তিনজনের যোগসাজশেই বেকার যুবক-যুবতীরা ন্যায্য পাওনা থেকে বঞ্চিত হয়েছে। বিষয়টি জেলা পঞ্চায়েতের CEO গৌরব বেনালকে জানানো হয়েছে। তিনি জানিয়েছেন, ঘটনার উপযুক্ত তদন্ত করা হবে। অভিযুক্তদের দোষ প্রমাণিত হলে যথাযথ শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।    

[আরও পড়ুন: পুজোর আগেই ‘বাম্পার অফার’, মাত্র ১১ টাকার টিকিট কেটেই দেখতে পাবেন পছন্দের সিনেমা]

Leave a Comment

%d bloggers like this: