24 C
Kolkata
Wednesday, May 12, 2021

ভারতের ভয়াবহ করোনা পরিস্থিতিতে উদ্বিগ্ন রামোস, চাইলেন অনুরাগীদের সাহায্য –

Must read

মাদ্রিদ: দৈনিক সংক্রমণ ৪ লক্ষ ছুঁই-ছুঁই। দেশে কোভিডে সর্বমোট মৃত্যুসংখ্যা গত বুধবারই ২ লক্ষ অতিক্রান্ত হয়েছে। দেশজুড়ে অক্সিজেনের হাহাকার, হাসপাতালে পর্যাপ্ত পরিকাঠামোর অভাব। সবমিলিয়ে মারণ করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ে বেহাল এবং বিপর্যস্ত ভারত। পৃথিবীর বৃহত্তম গণতন্ত্রের এমন ছবি দেখে উদ্বিগ্ন গোটা পৃথিবী। এদেশে অসংখ্য অনুরাগীর কারণে দেশ-বিদেশের বিভিন্ন অ্যাথলিটরাও ভীষণ উদ্বেগে ভারতের কোভিড পরিস্থিতি নিয়ে।

দিনকয়েক আগে উদ্বিগ্ন জামাইকার তারকা স্প্রিন্টার ইয়োহান ব্লেক ভারতবাসীর জন্য খোলা চিঠি লিখেছিলেন। দেশের মাটিতে চলতি আইপিএলের সঙ্গে জুড়ে থাকা বিভিন্ন ফ্র্যাঞ্চাইজি, ক্রিকেটাররা ইতিমধ্যেই ভারতের কোভিড মোকাবিলায় অর্থ সাহায্য করেছেন। এবার ভারতে কোভিড পরিস্থিতি দেখে আতঙ্কিত এবং উদ্বিগ্ন রিয়াল মাদ্রিদ অধিনায়ক সার্জিও রামোস। ভারতের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কোভিড পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য অনুরাগীদের কাছে অর্থসাহায্যের অনুরোধ করলেন স্প্যানিশ ডিফেন্ডার।

শুক্রবার ইউনাইটেড নেশনস চিলড্রেন’স ফান্ডের (UNICEF) একটি ওয়েবসাইট লিঙ্ক সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করে সেখানে সাহায্যের আবেদন করেছেন এই তারকা ডিফেন্ডার। মাইক্রোব্লগিং সাইট টুইটারে সেই লিঙ্ক শেয়ার করে রামোস লিখেছেন, ‘ভারতে মৃত্যু এবং সংক্রমণ ক্রমেই বেড়ে চলেছে। UNICEF আশঙ্কা করছে মারণ ভাইরাসের জেরে ৫ বছরের নীচে শিশুমৃত্যুর হারে ভারত অন্যান্য দেশকে টপকে যাবে। তাই জরুরি ভিত্তিতে ভারতের এইসময় সাহায্যের প্রয়োজন।’ রামোসের শেয়ার করা UNICEF -র ওয়েবসাইট লিঙ্কে প্রবেশ করে অর্থসাহায্য করতে পারবেন দেশ-বিদেশের ফুটবল অনুরাগীরা।

সবমিলিয়ে করোনার দ্বিতীয় সুনামি যেভাবে ভারতে আছড়ে পড়েছে তাতে সন্ত্রস্ত গোটা পৃথিবী। ইতিমধ্যেই ভারতের বন্ধু দেশগুলো নিজেদের মতো করে দুঃসময়ে ভারতের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছে। কঠিন সময়ে দাঁড়িয়ে রামোসের এই প্রচেষ্টাকেও সাধুবাদ জানাতে হয়।

সম্প্রতি কোভিডে আক্রান্ত হয়েছিলেন রামোস নিজেও। সঙ্গে কাফ মাসলে চোটের কারণে বেশ কয়েক সপ্তাহ মাঠের বাইরে স্প্যানিশ ডিফেন্ডার। চেলসির বিরুদ্ধে চ্যাম্পিয়নে লিগ সেমিফাইনালের প্রথম লেগ স্ট্যান্ড থেকেই দেখেছেন তিনি। মনে করা হচ্ছে আগামী সপ্তাহে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ সেমিফাইনালের ফিরতি লেগে মাঠে দেখা যেতে পারে তাঁকে। প্রথম লেগে ঘরের মাঠে ব্লুজ’দের সঙ্গে ১-১ ড্র করেছে লস ব্ল্যাঙ্কোসরা।

লাল-নীল-গেরুয়া…! ‘রঙ’ ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা ‘খাচ্ছে’? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম ‘সংবাদ’!

‘ব্রেকিং’ আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের।

কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে ‘রঙ’ লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে ‘ফেক’ তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই ‘ফ্রি’ নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

Source

- Advertisement -spot_img

More articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Latest article