বিহার সরগরম, নেপালে থাকা বিজেপি প্রার্থীর ভাইয়ের বাড়িতে বিপুল সোনা বাজেয়াপ্ত – Sangbad | Read Latest Bengali News, Breaking News in Bangla from West Bengal’s Leading online Newspaper

রক্সৌল: বিধানসভা নির্বাচনের আগেই বেআইনি সোনা মজুত ও বিদেশে পাচারের অভিযোগে প্রবল বিতর্কে জড়াল বিজেপি। নেপাল সরকারের নির্দেশে সে দেশে থাকা বিজেপি নেতার ভাইয়ের ফ্ল্যাটে মিলেছে বিপুল পরিমাণ সোনা ও রুপো। আনুমানিক মূল্য ভারতীয় এবং নেপালি মূদ্রায় কয়েক কোটি টাকা।

বিহারের রক্সৌল শহরের ওপারে নেপালের সীমান্ত শহর বীরগঞ্জ। আর রক্সৌলের বিজেপি প্রার্থী প্রমোদ কুমার সিনহার ভাই অশোক সিনহা নেপালের বীরগঞ্জে থাকেন। তার ফ্ল্যাটের অভিযান চালায় নেপালের পুলিশ ও অভিবাসন (কাস্টমস) বিভাগ। সেই ফ্ল্যাটে মিলেছে সোনার বিস্কিট, ও রুপোর বাঁট।

এর আনুমানিক মূল্য কোটি টাকা ছাড়িয়ে গেলেও আসল হিসেব এখনও আসেনি। নেপাল সরকার জানাচ্ছে, অভিযান সমাপ্ত। বেআইনি সোনা রুসো বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। বাজেয়াপ্ত করা সোনার পরিমাণ ২৩ কিলোগ্রাম ও রুপো ২ কিলো। নেপালের বীরগঞ্জে রেশম কোঠি মহল্লায় ফ্ল্যাট আছে অশোক সিনহার। তিনি বিহারের বিজেপি নেতার ভাই।

সেই সূত্রে প্রভাব খাটিয়ে নেপালে ফ্ল্যাটের মালিক হন। নেপালের পর্সা জেলা পুলিশ জানিয়েছে, ভারতীয় নাগরিক অশোক সিনহার ফ্ল্যাটে বেআইনি সোনা মজুত আছে এর খবর দেয় রেশম কোঠির বাসিন্দারা। গোপনে ভারত ও নেপালের সীমান্ত পেরিয়ে এই কারবারে জড়িত অশোক সিনহা।

খবর পেয়ে অভিযান চালানো হয়। বীরগঞ্জের রেশম কোঠির গণেশ অ্যাপার্টমেন্টে যে ফ্ল্যাটে অশোক সিনহা থাকেন সেটি সিল করা হয়েছে। নেপাল পুলিশ জানায়, অশোক সিনহা ভারতীয় কাস্টমস বিভাগের উচ্চপদস্থ কর্মী। তিনি বীরগঞ্জেই বেশি সময় থাকেন। এলাকাবাসীর সঙ্গে তেমন যোগাযোগ ছিল না।

তবে তার বিরুদ্ধে অনেকেই সীমান্তপারের বেআইনি চালান ব্যবসায় জড়িত থাকার অভিযোগ করেছেন। রক্সৌল বিধানসভা নেপালের সীমান্তবর্তী। পূর্ব চম্পারণ জেলার রক্সৌল ২০০০ সাল থেকে টানা বিজেপির দখলে।

এবার সেখানে প্রার্থী বদল করেছে বিজেপি। গতবারের জয়ী অজয় কুমার সিংয়ের বদলে প্রার্থী হয়েছেন প্রমোদ সিনহা। তারই ভাই নেপালে ধরা পড়লেন বেআইনি সোনা পাচারের অভিযোগে।

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব ‘দশভূজা’য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।

Leave a Comment

%d bloggers like this: