24 C
Kolkata
Wednesday, May 12, 2021

ফের ঊর্ধ্বমুখী সংক্রমণ, করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়াল ৩ লক্ষ ৮২ হাজার – Kolkata24x7 | Read Latest Bengali News, Breaking News in Bangla from West Bengal’s Leading online Newspaper

Must read

নয়াদিল্লি: দিন কয়েক স্বস্তি দিয়ে ফের দেশে বাড়ল করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। রবিবার থেকে মঙ্গলবার পর্যন্ত করোনা আক্রান্তের সংখ্যা কমার ফলে আশার আলো দেখেছিল মানুষ। কিন্তু বুধবার আবার বাড়ল আক্রান্তের সংখ্যা। তবে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়লেও সুস্থের সংখ্যা এদিন বেড়ে যাওয়ায় কিছুটা স্বস্তি ফিরেছে।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী গত ২৪ ঘন্টায় দেশে করোনা সংক্রমিত হয়েছেন ৩ লক্ষ ৮২ হাজার ৩১৫ জন। মঙ্গলবার এই সংখ্যা ছিল ৩ লক্ষ ৫৭ হাজার ২২৯ জন। গত সপ্তাহে যেভাবে ঊর্ধ্বমুখী হচ্ছিল সংক্রমণ, গত কয়েকদিনের সংখ্যা তার চেয়ে কিছুটা কম ছিল। ফলে আশা জেগেছিল দেশবাসীর মনে। কিন্তু এদিনের রিপোর্ট সেই আশায় জল ঢেলে দিল। মঙ্গলবার যেখানে ৩ হাজার ৪৪৯ জনের মৃত্যু হয়েছিল সেখানে বুধবার রিপোর্ট বলছে মৃতের সখ্যা ৩ হাজার ৭৮০। অর্থাৎ মৃতের সংখ্যাও গত কয়েকদিনের তুলনায় বেশ কিছুটা বেড়েছে। এখনও পর্যন্ত দেশে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২ কোটি ছাড়িয়ে গিয়েছে। বর্তমানে দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২ কোটি ০৬ লক্ষ ৬৫ হাজার ১৪৮ জন। মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২ লক্ষ ২৬ হাজার ১৮৮। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনামুক্ত হয়েছেন ৩ লক্ষ ৩৮ হাজার ৪৩৯ জন। বর্তমানে দেশের মোট অ্যাক্টিভ কেসের সংখ্যা ৩৪ লক্ষ ৮৭ হাজার ২২৯। দেশে এখনও পর্যন্ত সবমিলিয়ে সুস্থ হয়েছেন ১ কোটি ৬৯ লক্ষ ৫১ হাজার ৭৩১ জন। এখনও পর্যন্ত দেশে টিকা পেয়েছেন মোট ১৬ কোটি ৪ লক্ষ ৯৪ হাজার ১৮৮ জন।

এদিকে করোনার এই ভয়াবহ পরিস্থিতির মধ্যেই আরও এক আশঙ্কার কথা শোনালেন এইমস প্রধান রণদীপ গুলেরিয়া। তিনি আশঙ্কা প্রকাশ করে বলেন, এই মারণ ভাইরাস করোনা যেভাবে নিজের বৈশিষ্ট পাল্টাচ্ছে তাতে ভারত দ্রুত করোনা ভাইরাসের তৃতীয় তরঙ্গের সম্মুখীন হবে। কিছু রাজ্য নাইট কারফিউ, সপ্তাহান্তে লকডাউন ঘোষণা করেছে। কিন্তু এতে কোনও লাভ হবে না বলে মনে করেন তিনি। এদিন এইমস প্রধান তিনটি বিষয় লক্ষ্য রাখার কথা বলেন। প্রথমটি হ’ল হাসপাতালের পরিকাঠামোগত উন্নয়ন। দ্বিতীয়, দ্রুত করোনা আক্রান্তের সংখ্যা কমাতে হবে। তৃতীয়, টিকাকরণ। আমাদের সংক্রমণের চেইন ভাঙতে হবে। যদি আমরা মানুষের মধ্যে ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ হ্রাস করতে পারি তবে সেটা সম্ভব। তার পরেই আক্রান্তের সংখ্যা কমানো সম্ভব।

লাল-নীল-গেরুয়া…! ‘রঙ’ ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা ‘খাচ্ছে’? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম ‘সংবাদ’!

‘ব্রেকিং’ আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের।

কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে ‘রঙ’ লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে ‘ফেক’ তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই ‘ফ্রি’ নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

Source

- Advertisement -spot_img

More articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Latest article