24 C
Kolkata
Wednesday, May 12, 2021

অবাক করা দামে ভারতে মিলছে Vivo Y52s T1 Version, জেনে নিন ফিচার্স সম্পর্কে – Kolkata24x7 | Read Latest Bengali News, Breaking News in Bangla from West Bengal’s Leading online Newspaper

Must read

ফোন প্রস্তুত কারক সংস্থা Vivo সোমবার ৩ মে চীনে লঞ্চ করেছে তাদের Vivo Y52s (T1 Version) স্মার্টফোনটি। অনেকে সংস্থার আসন্ন নতুন ফোনটি গত বছর ডিসেম্বরে চীনে লঞ্চ করা Vivo Y52s শাখা বলে মনে করছে। তার কারণ দুটি ফোনের বেশ কিছু বৈশিষ্ট্য এক রকম রেখেছে Vivo। তবে আলাদা রয়েছে উভয় ফোনের প্রসেসরের ব্যবস্থা। Vivo Y52s (T1 Version) যেখানে রয়েছে Qualcomm Snapdragon 480 SoC, সেখানে Vivo Y52s তে ছিল MediaTek Dimensity 720 SoC। এছাড়া সংস্থার দুটি স্মার্টফোনে রয়েছে ৫০০০ মেগাহার্জের একটি ব্যাটারি পরিষেবা,‌ যা ১৮ ওয়াট দ্রুত চার্জিং সমর্থন করবে।

নতুন Vivo Y52s (T1 Version) স্মার্টফোনটি একটি বিকল্পে মিলবে গ্রাহকদের। চীনে ৮ জিবি র‍্যাম এবং ২৫৬ জিবি স্টোরেজের দাম রাখা হয়েছে CNY 2,099, ভারতীয় মূল্যে যার দাম ২৩,৯০০ টাকা। কোরাল সি, মনেট এবং টাইটানিয়াম গ্রে তিনটি রঙের সম্ভারে স্মার্ট ফোনটি বাজারে লঞ্চ করেছে সংস্থা। ভিভো চীনা অনলাইন স্টোর এবং JD.com সাইটে বিক্রি করা হবে Vivo Y52s (T1 Version) স্মার্টফোনটি।

ডুয়াল নেনো সিমের Vivo Y52s (T1 Version) ফোন চালনা করার জন্য Android 11 ওপর ভিত্তি করে থাকবে Origin OS 1.0 ব্যবস্থা। একটি ৬.৫৮ ইঞ্চি full-HD+ ১,০৮০x২,৪০৮ পিক্সেল LCD ডিসপ্লের সঙ্গে থাকবে একটি ৯০ হার্জ রিফ্রেস রেট। হুডের নিচে থাকবে একটি Qualcomm Snapdragon 480 SoC, যার সঙ্গে যুক্ত থাকবে 8GB RAM। এর পাশাপাশি স্টোরেজের জন্য থাকবে 256GB অনবোর্ড স্টোরেজের পরিষেবাও।

ক্যামেরার জন্য Vivo Y52s (T1 Version) তে গ্রাহকদের মিলবে একটি ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরা ব্যবস্থা। এর মধ্যে যুক্ত থাকবে একটি 48-megapixel primary সেন্সারের সঙ্গে একটি f/1.79 অ্যাপার্চার, একটি 2-megapixel depth সেন্সারের সঙ্গে একটি f/2.4 অ্যাপার্চার। সেলফি এবং ভালো ভিডিও কলের জন্য গ্রাহকদের মিলবে একটি 8-megapixel সেলফি ক্যামেরা সেন্সারের সঙ্গে একটি f/1.8 অ্যাপার্চারের পরিষেবা। এছাড়া Vivo Y52s (T1 Version) স্মার্টফোনে রয়েছে ৫০০০ মেগাহার্জের একটি ব্যাটারি পরিষেবা যা ১৮ ওয়াট দ্রুত চার্জিং সমর্থন করবে।

লাল-নীল-গেরুয়া…! ‘রঙ’ ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা ‘খাচ্ছে’? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম ‘সংবাদ’!

‘ব্রেকিং’ আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের।

কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে ‘রঙ’ লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে ‘ফেক’ তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই ‘ফ্রি’ নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

Source

- Advertisement -spot_img

More articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Latest article